প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন  : আমি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক কনফারেন্সে দ্বীন বিষয়ক আলোচনায় অংশগ্রহণ করে থাকি। শ্রোতাদের মধ্যে পুরুষ ও নারী উভয়ই থাকে। এটা কি জায়েয হবে?

-নাজমা বেগম, কানাডা।

উত্তর : শায়খ বিন বায সহ কতিপয় বিদ্বানের মতে এটি জায়েয হবে। কারণ আল্লাহ তা‘আলা বলেন, আর মুমিন পুরুষ ও নারী পরস্পরের বন্ধু (সহযোগী)। তারা সৎ কাজের আদেশ করে ও অসৎ কাজে নিষেধ করে’ (তওবা ৯/৭১)। অতএব পূর্ণ শারঈ পর্দা ও আদব বজায় রেখে এরূপ সেমিনার বা কনফারেন্সে মহিলাদের বক্তব্য উপস্থাপন নাজায়েয নয়। কেননা এখানে মূল উদ্দেশ্য হ’ল নছীহত করা। মহিলা ছাহাবী ও তাবেঈদের অনেকেই পুরুষ-মহিলা নির্বিশেষে দ্বীনের নছীহত করতেন এবং দ্বীন শিক্ষা দিতেন (বিন বায, ফাতাওয়া নূরুন আলাদ দারব)। তবে নিঃসন্দেহে উত্তম হ’ল, নারীরা নারীদের মজলিসে বক্তব্য রাখবে ও শিক্ষাদান করবে। নারী ও পুরুষের কর্মক্ষেত্র ভিন্ন হওয়াটাই নিয়ম (মুসলিম হা/৪৪০; আবুদাঊদ হা/ ৬৭৮; মিশকাত হা/১০৯২)


দারুল ইফতা
হাদীছ ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

এ সম্পর্কিত অন্যান্য পোস্ট

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close