আর্টিকেল

দো‘আর আদব বা শিষ্টাচার সমূহ

মহান আল্লাহ মানুষের জন্য যাবতীয় প্রয়োজন পূরণ করে থাকেন। তাই আল্লাহর কাছেই মানুষকে চাইতে হবে। জুতার ফিতার প্রয়োজন হ’লেও রাসূল (ছাঃ) আল্লাহর কাছে চাইতে বলেছেন। আল্লাহর কাছে চাইলে তিনি খুশী হন এবং তিনি বান্দার দো‘আ বা প্রার্থনা কবুল করেন। তিনি... বিস্তারিত পড়ুন

বই

প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন  : রাসূল (ছাঃ) থেকে নির্দেশনা না থাকলেও অনেক সময় কোন ছাহাবী কোন আমল করেছেন। অতঃপর রাসূল (ছাঃ) তার ফযীলত বর্ণনা করেছেন বা অনুমোদন দিয়েছেন। যেমন প্রত্যেক রাক‘আতে সূরা ইখলাছ পাঠ করা, রববানা লাকাল হামদ-এর পর হামদান কাছীরান... ইত্যাদি। একইভাবে নেকীর আশায় ফরয ছালাতের পর হাত তুলে মুনাজাত করায় বাধা কোথায়?

-মনযূর হোসাইন/মান্দা, নওগাঁ। উত্তর : বাধা হ’ল এই যে, কাজটি রাসূল (ছাঃ)-এর যামানায় করা হয়নি বা তিনি সমর্থনও করেননি। এ ব্যাপারে রাসূলের নির্দেশনা বা অনুমোদন না থাকাটাই তা বিদ‘আত হওয়ার বড় প্রমাণ। মালেক বিন আনাস (রহঃ) দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলেছেন,... বিস্তারিত পড়ুন

দো’আ ও যিকর

ফাতাওয়া

বিবিধ

যয়তুন তেল (জলপাই-Olive Oil) এর নানাবিধ উপকারিতা:

যায়তুন একটি বরকতয় ফল। কেননা, আল্লাহ তাআলা সূরা তীন এ যায়তুন এর কসম খেয়েছেন। আল্লার রাসূল সা. এর তেল খেতে ও মালিশ করতে বলেছেন। তিনি বলেন: كلوا الزيت وادهنوا به فإنه من شجرة مباركة “তোমরা যায়তুনের তেল খাও এবং এর দ্বারা মালিশ কর বা শরীরে মাখ।... বিস্তারিত পড়ুন