preloder
ইলম (ইসলামী জ্ঞান)

চোখের বালি

কাল আপনি ওর চোখে ভালো ছিলেন, আজ আপনি তার চোখের বালি।
কাল আপনি ভালো বাপ্ ছিলেন, ভালো ভাই, ভালো দোলাভাই, ভালো স্বামী, ভালো বন্ধু ছিলেন, ভালো মা ছিলেন, ভালো বোন, ভালো বউ ছিলেন, আজ কেন চোখের বালি হয়ে গেলেন?
কেন জানেন না?
আমার মনে হয় আজ থেকে আপনি ভালো কাজের আদেশ ও মন্দ কাজে বাধা দেয়া শুরু করেছেন। খারাপকে খারাপ, ঘৃণ্যকে ঘৃণ্য বলা শুরু করেছেন।
আপনি ভালো ছিলেন, ভালো হওয়ার সকল গুণ আপনার মধ্যে ছিল, কিন্তু যখনই ভালো হওয়ার পরিপূরক গুণ আপনার মাঝে প্রকাশ লাভ করল, তখনই আপনি ওদের চোখে খারাপ হয়ে গেলেন।
যেহেতু লোকে `সালেহ’কে ভালোবাসে, কিন্তু `মুসলেহ’কে ঘৃণা করে। যে ভালো কাজ করে ও মন্দ কাজ করা থেকে বিরত থাকে, তাকে সবাই পছন্দ করে, কিন্তু যে ভালো কাজের আদেশ দান করে ও মন্দ কাজে বাধাদান করে তাকে লোকেরা অপছন্দ করে।
কাল মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) `আল-আমীন’ ও ভালো লোক ছিলেন, কিন্তু যখনই নবী হয়ে ভালো কাজের আদেশ করে ও মন্দ কাজে বাধা দিতে শুরু করলেন, তখনই তিনি শত্রু হয়ে গেলেন। লোকেরা তাঁকে জাদুকর, মিথ্যুক ইত্যাদি বলে দূরে সরিয়ে দিতে লাগলো।
`সালেহ’ ব্যক্তি মানুষের বিরোধী নাও হতে পারে, কিন্তু নিশ্চিতরূপে `মুসলেহ’ ব্যক্তি মানুষের চক্ষুশূল হয়। যেহেতু তাদের চাওয়া-পাওয়া ও স্বেচ্ছাচারিতার সাথে মুসলেহের সংঘর্ষ বাধে। তাদের ভোগবিলাসের কাবাবে হাড্ডি হয় মুসলেহ।
হুযাইফা (রাজিয়াল্লাহু আনহু) বলেছেন,
(يأتى على الناس زمان يكون فيهم جيفة الحمار احب اليهم من مؤمن يأمرهم بالمعروف وينهاهم عن المنكر) `মানুষের নিকট এমন এক যুগ আসবে, যখন তাদের নিকট একটি মরা গাধা সেই মুমিন থেকে বেশি পছন্দনীয় হবে, যে সৎকর্মের আদেশ ও অসৎকর্মে বাধাদান করবে।’ (তাফসীর কাশশাফ ১/৪২৬, তাফসীর হাক্কী ২/২৫৩)
আহলে ইলমগণ বলেছেন,
مصلحٌ واحدٌ أحب إلى الله من ألف صالح.
“একজন `মুসলেহ’ আল্লাহর নিকট এক হাজার জন `সালেহ’ অপেক্ষা বেশি পছন্দনীয়।”
যেহেতু মুসলেহ দ্বারা আল্লাহ একটি জাতিকে বাঁচিয়ে নিতে পারেন। আর `সালেহ’ কেবল নিজেকে বাঁচাতে পারে।
মহান আল্লাহ বলেছেন,
{وَمَا كَانَ رَبُّكَ لِيُهْلِكَ الْقُرَى بِظُلْمٍ وَأَهْلُهَا مُصْلِحُونَ} (117) سورة هود
`তোমার প্রতিপালক এমন নন যে, জনপদসমূহকে অন্যায়ভাবে ধ্বংস করে দেন, অথচ ওর অধিবাসীরা `মুসলেহ’ থাকে।’ (সূরা হুদ ১১৭)
এখানে তিনি বলেননি, `সালেহ’ থাকে।
রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) বলেছেন,
((إِنَّ الإِسْلامَ بَدَا غَرِيبًا ، وَسَيَعُودُ غَرِيبًا كَمَا بَدَا ، فَطُوبَى لِلْغُرَبَاءِ)).
`নিশ্চয় ইসলাম (প্রবাসীর মতো অসহায়) অল্প সংখক মানুষ নিয়ে শুরুতে আগমন করেছে এবং অনুরূপ অল্প সংখক মানুষ নিয়েই ভবিষ্যতে প্রত্যাগমন করবে; যেমন শুরুতে আগমন করেছিল। সুতরাং শুভ সংবাদ ঐ (প্রবাসীর মতো অসহায়) অল্প সংখক লোকেদের জন্য।’
বলা হলো, `(প্রবাসীর মতো অসহায়) অল্প সংখক লোক কারা?’
তিনি বললেন,
((الَّذِينَ يُصْلِحُونَ إِذَا فَسَدَ النَّاسُ)).
`যারা মানুষ অসৎ হয়ে গেলে তাদের `ইসলাহ’ (সংশোধন) করে।’ (আহমদ ১৬৬৯০, তাবারানীর কাবীর ৭৫৫৪, আওসাত ৩০৫৬ নং)
সুসংবাদ সেই লোকেদের কাছে `চোখের বালি’ মানুষের জন্য।


সংগ্রহ : আব্দুল হামীদ আল-ফাইজি আল-মাদানী

Tags

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close