preloder
মৃত্যু | কবর | কিয়ামত | জাহান্নাম | জান্নাত

একদিন ক্ষণস্থায়ী পৃথিবী ছেড়ে চলে যেতেই হবে

আমাদের মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ’লার ইচ্ছায় আমরা এ পৃথিবীতে আগমণ করেছি। তাঁর ইচ্ছাতেই আমরা আবার এই সুন্দর, ক্ষনস্থায়ী পৃথিবী ছেড়ে চলে যাবো!

একদল আসছে,
অন্য দল বিদায় নিচ্ছে!

মানব জাতির এ আগমণ-প্রস্থানকে সমুদ্রের ঢেউয়ের সাথে তুলনা করা চলে। এক ঝাঁক ঢেউ সমুদ্র সৈকতে এসে শেষ হয়। তার পিছ ধরেই আরেক ঝাঁক ঢেউ আগমণ করে এবং তীরে এসে শেষ হয়। এমনি চলমান নদীর সাথে মানুষের চলার গতির যথেষ্ট মিল রয়েছে।

নদীর তীরে দাঁড়িয়ে আপনি এখন যে পানি অবলোকন করছেন সেটি একটু আগে বয়ে যাওয়া পানি নয় বরং নদী সেটিই। এমনিভাবে বর্তমান পৃথিবীতে আপনি
যাদের সাথে বাস করছেন, তাদের কেউ পাঁচশত
বছর পূর্বের মানুষ নয়।

যারা এ পৃথিবীতে আপনার মতই বসবাস করেছিল তারা চলে যাওয়ার পর আপনি এখন তাদের স্থান দখল করে বসেছেন। আপনিও একদিন চলে যাবেন। আপনার স্থানে অন্যরা আসবে।

মানব জাতির চলার এ গতি একদিন থেমে যাবে।
সেদিন পৃথিবীতে বসবাসরত সকল মানুষ একসাথে
নিঃশেষ হয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, সমস্ত পৃথিবী ধ্বংস
হয়ে যাবে। রাতের তারকাগুলোর আলো নিভে
যাবে। সাগরের ঢেউ থেমে যাবে। নদ-নদীর
পানি শুকিয়ে যাবে। সেই মহা প্রলয় আসার পূর্বেই আল্লাহর দিকে ফিরে আসা জরুরী নয় কি!?

.

আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ’লা বলেন
ﻳَﺎ ﺃَﻳُّﻬَﺎ ﺍﻟْﺈِﻧْﺴَﺎﻥُ ﻣَﺎ ﻏَﺮَّﻙَ ﺑِﺮَﺑِّﻚَ ﺍﻟْﻜَﺮِﻳﻢِ
“হে মানব সন্তান, কে তোমাকে তোমার মহিমান্বিত রব সম্পর্কে উদাসীন করল?”
—- [সূরা: ইনফিতার: আয়াত ৬ ]
.

আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ’লা আরো বলেন,
ﺍﻟَّﺬِﻱ ﺧَﻠَﻘَﻚَ ﻓَﺴَﻮَّﺍﻙَ ﻓَﻌَﺪَﻟَﻚَ
যিনি তোমাকে সৃষ্টি করেছেন, অতঃপর তোমাকে সুবিন্যস্ত করেছেন এবং সুষম করেছেন।
—- [সূরা: ইনফিতার: আয়াত ৭ ]

.
আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ’লা আরো বলেন,
ﻓِﻲ ﺃَﻱِّ ﺻُﻮﺭَﺓٍ ﻣَﺎ ﺷَﺎﺀَ ﺭَﻛَّﺒَﻚَ
যিনি তোমাকে তাঁর ইচ্ছামত আকৃতিতে গঠন করেছেন।
—- [সূরা: ইনফিতার: আয়াত ৮ ]
.

প্রিয় সর্তীর্থবৃন্দ!
উপরিউক্ত আয়াতগুলো গভীর মনোযোগ দিয়ে অনুধাবনের চেষ্টা করুন। আমাদের রব আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তাআ’লা কত্তো সুন্দর, কত মাধুর্য দিয়ে আমাদের সম্ভাষণ করছেন মানব সন্তান বলে।
অত:পর, আমাদের প্রশ্ন করছেন কিসের মোহে পরে আমরা আমাদের সৃষ্টিকর্তাকে ভুলে গেলাম!?

টাকা,পয়সা, নারী , গাড়ি, বাড়ী এসব কিছুই একদিন থাকবে না। তবুও আমরা এদের পেছনেই ছুটি! মিথ্যে মোহ, অহংকারের চূড়ায় বসে ভাবি আমিই সেরা! কত দাম্ভিক আমরা! অথচ এখনি যদি শ্বাস নেয়া বন্ধ হয়ে যায়,তাহলেই শুধু মাত্র ‘লাশ’ হিসেবে পড়ে রবো। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাসা থেকে বের করে মাটির ঘরে দিয়ে আসা হবে। যেখানে যাবার পর মাটি চাপা দিয়ে আমাদের এই সুন্দর সুন্দর চেহারাগুলোকে চুর্ণ-বিচূর্ণ করে দেয়া হবে! তবুও আমরা উদাসীন আমাদের রবের প্রতি, আমাদের ঈমানের প্রতি, আমাদের সালাত, সাওম প্রতি, আমাদের পর্দার প্রতি, সর্বপরি আল্লাহর দ্বীনের প্রতি!!!
.

“ইয়া মুকাল্লিবাল কুলূউব, ছাব্বিত কা’লবী আলা দ্বীনিক”।
[ হে অন্তর পরিবর্তনকারী, আমার অন্তরকে তুমি তোমার দ্বীনে সুদৃঢ় রাখো]


আখতার বিন আমীর।
#ShotterDikeAhobban

Tags

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Close